আন্তর্জাতিক

করোনা: বাড়ি ভাড়া থেকে জনগণের সব দায়িত্ব নিলেন ট্রুডো

কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো বলেছেন, করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে তার সরকার কানাডিয়ানদের অর্থনৈতিক দৈন্য-দশায় পড়তে দেবে না। নিজের স্বাস্থ্য, পরিবারের স্বাস্থ্য, চাকরি বা বাড়ি ভাড়া নিয়ে কারও চিন্তিত হওয়ার দরকার নেই। সরকার সব দেখবে। কানাডার সংবাদমাধ্যম সিটিনিউজ১১৩০ এ তথ্য জানিয়েছে।

সর্বশেষ খবর অনুযায়ী কানাডায় ৩৪১ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্যে একজন মারা গেছেন। সুস্থ হয়েছেন ১১ জন। প্রধানমন্ত্রী ট্রুডো ও তার স্ত্রী সোফি গ্রেগরি ১৪ দিনের আইসোলেশনে রয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোর শরীরে এখনও করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঘটেনি। এছাড়া স্ত্রী সোফি করোনায় আক্রান্ত হলেও তার অবস্থা স্থিতিশীল।

শুক্রবার প্রধানমন্ত্রী ট্রুডো বলেন, কোভিড-১৯-এর কারণে বাড়ি ভাড়া, মুদি কেনাকাটা বা শিশুদের অতিরিক্ত সেবায় অর্থ খরচ নিয়ে চিন্তিত হওয়ার দরকার নেই। আমরা কানাডিয়ানদের আর্থিকভাবে সহযোগিতা করব।

তিনি বলেন, আপনারা নিজের স্বাস্থ্য, পরিবারের স্বাস্থ্য, চাকরি, সঞ্চয়, বাড়ি ভাড়া, ছেলেমেয়েদের স্কুলে পাঠানো নিয়ে চিন্তিত আছেন। আমি জানি, (করোনার কারণে) বৈশ্বিক অর্থনীতির কারণে আপনার অনিশ্চয়তায় আছেন। আপনাদের নিরাপদ রাখতে যেসব পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে তাতে দেশের অর্থনীতির ওপর প্রভাব পড়বে। তবে এটা সত্য যে, আমরা অর্থনৈতিকভাবে এখন যে অবস্থানে আছি তা আপনাদের অর্থনৈতিক নিরাপত্তা দিতে যথেষ্ট।

আমরা মানি যে আমাদের আরও অনেক কিছু করণীয় আছে। আমরা চাই না কোনো নাগরিক বাড়ি ভাড়া দিতে পারবেন কি-না, বাজার করতে পারবেন কি-না বা তাদের ছেলেমেয়েদের দেখাশোনা করতে পারবেন কি-না, তা নিয়ে চিন্তা করুক।
প্রধানমন্ত্রী ট্রুডো জানিয়েছেন, তিনি অসুস্থ (করোনায়) হয়ে পড়লেও বাসায় থেকেই কাজ করে যাবেন।

ট্রুডো ঘোষণা দিয়েছেন, করোনা মোকাবিলায় খুব শিগগিরই তার সরকার ‘সিগনিফিক্যান্ট ফিসক্যাল স্টিমুলাস’ নামে একটি বিশেষ প্যাকেজ চালু করতে যাচ্ছে। এই প্যাকেজটি গত সপ্তাহে ঘোষিত ১ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের অতিরিক্ত।

সূত্রঃ বাংলাদেশ প্রতিদিন

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button

Blocker Detected

Please Remove your browser ads blocker