আন্তর্জাতিক

বরফ উৎসবে হিমশীতল দুর্গ

চীনে শুরু হয়েছে ৩৭তম হারবিন ইন্টারন্যাশনাল আইস অ্যান্ড স্নো স্কাল্পচার ফেস্টিভ্যাল। এতে বরফের টাওয়ার, প্রাসাদ ও দুর্গ ঘুরে দেখার সুযোগ পাচ্ছেন দর্শনার্থীরা। এছাড়া রয়েছে প্যাগোডা, সেতু, হটপট রেস্তোরাঁ। রাতের নানান রঙে আলোকিত হয়ে ওঠে এসব।

চীনের উত্তর-পূর্বে হেইলংজিয়াঙ প্রদেশে হারবিন শহরে প্রতি বছর অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে উৎসবটি।

তবে এবার করোনা ভাইরাস মহামারির কারণে দর্শনার্থীর সংখ্যা সীমিত রাখা হয়েছে। শুধু চীনারাই উৎসবটি উপভোগ করতে পারছেন।

বরফ ও তুষার দিয়ে বানানো শিল্পকর্ম নিয়ে বিশ্বের বৃহত্তম আয়োজনগুলোর মধ্যে হারবিন ইন্টারন্যাশনাল আইস অ্যান্ড স্নো স্কাল্পচার ফেস্টিভ্যাল অন্যতম। এতে আরও থাকে স্লেজিং, আইস হকি, আইস ফুটবল, স্পিড স্কেটিং ও আল্পাইন স্কি প্রতিযোগিতা।

হেইলংজিয়াঙ প্রদেশের কাছের সংহুয়া নদী থেকে ১ লাখ বরফখণ্ড তুলে ট্রাকে করে হারবিনে আনা হয়। কারণ কৃত্রিম বরফ বাতাসে হেলে পড়ার আশঙ্কা থাকে।

গত ডিসেম্বরে প্রায় ৩০০ নির্মাণ শ্রমিক ও কৃষক উৎসবটির জন্য বরফের ভাস্কর্য তৈরিতে কাজ করেছেন। প্রতিদিন ভোর ৬টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত চলতো তাদের ব্যস্ততা।

মাঝে মধ্যে মধ্যরাত হয়ে যেতো। তারা ঠান্ডা থেকে রক্ষা পেতে হাঁটুঢাকা রাবার বুট, ডাউন জ্যাকেট, মোটা হাতমোজা ও টুপি পরতেন।

১৯৬৩ সালে শুরু হয়েছিল উৎসবটি। কিন্তু চীনের সাংস্কৃতিক বিপ্লবের কারণে এই আয়োজন ব্যাহত হয়। ১৯৮৫ সাল থেকে উদযাপন করা হচ্ছে হারবিন ইন্টারন্যাশনাল আইস অ্যান্ড স্নো স্কাল্পচার ফেস্টিভ্যাল।

এবারের আয়োজন চলবে আগামী ২৫ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত।

সূত্রঃ বিএএফ

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button

Blocker Detected

Please Remove your browser ads blocker