বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

নতুন প্রজাতির ডাইনোসরের সন্ধান, চলাফেরা করত দুই পায়ে!

আজ থেকে প্রায় ৯ কোটি বছর আগে দক্ষিণ ব্রাজিলের ছোট্ট শহর ক্রুজেরিও দো ওয়েস্ট মরুভূমিতে দাপিয়ে বেড়াত হিংস্র মাংসাশী ডাইনোসর। ব্রাজিলের এই ছোট্ট শহরে মাটির নিচে সম্পূর্ণ এক নতুন প্রজাতির ডাইনোসরের জীবাশ্মের সন্ধান পেলেন বিজ্ঞানীরা।

জীবাশ্মের নমুনা থেকে প্যালেন্টোলজিস্টরা এই ডাইনোসর কেমন ছিল তার একটা ধারণা করেছেন। নতুন প্রজাতির এই ডাইনোসর দুই পায়ে চলাফেরা করত। বিজ্ঞানীদের মতে, থেরোপড নামে ডাইনোসরদের এক মাংসাশী গ্রুপের অন্তর্গত ছিল এই ডাইনোসর। ‘জুরাসিক পার্ক’ সিনেমার হিংস্র ছোট আকৃতির ডাইনোসর ভেলোসিরাপ্টর ও সেই একই গ্রুপের অন্তর্গত। নতুন প্রজাতির এই ডাইনোসরের নাম রাখা হয়েছে ‘ভেসপারসরাস প্যারান্যায়েনসিস।’

ব্রাজিলের পারানা রাজ্যের এই অংশে ডাইনোসরের জীবাশ্মের খোঁজ পাওয়া অবশ্য প্রথম নয়। এর আগে ১৯৭০ সালে ক্রুজেও দো ওয়েস্ট শহরে কিছু ডাইনোসরের পায়ের ছাপ পাওয়া গিয়েছিল। সেই সময়েই এটিকে কোনও অজানা প্রজাতির ডাইনোসর বলে আন্দাজ করতে পেরেছিলেন বিশেষজ্ঞরা। তার জন্য বেশ কিছু বছর ধরে শহরের আশেপাশের বিভিন্ন অংশে চলছিল খননকার্য। শহরের ডাইনোসর মিউজিয়ামের বিশেষজ্ঞ পাওলো মানজিগ জানান, প্রায় ৫০ বছরের খোঁজের পর অবশেষে সন্ধান পাওয়া গেল এই নতুন প্রজাতির।

পারানা রাজ্যের উত্তর-পূর্ব অংশে গাছপালা ঘেরা সবুজ শহর ক্রুজেরিও ডু ওয়েস্টে। তবে প্রায় ৯ কোটি বছর আগে এই অংশটিতে ছিল রূক্ষ শুষ্ক মরুভূমি। সেই মরুভূমিতেই বসবাস করত এই ডাইনোসর। বিজ্ঞানীদের মতে, প্রায় ৫ ফুট লম্বা ছিল এই ডাইনোসর। আপাতত, ডাইনোসরটির সম্পর্কে আরও তথ্য জানাতে চাইছেন ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনার বিজ্ঞানীরা। ব্রাজিলের বিভিন্ন অংশে এই ধরনের আরও ফসিলের খোঁজ করছেন তাঁরা।

সূত্রঃ বাংলাদেশ প্রতিদিন

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button

Blocker Detected

Please Remove your browser ads blocker