বাংলাদেশ

অভিজিৎ হত্যা মামলার রায় ১৬ ফেব্রুয়ারি

মুক্তমনা ব্লগের প্রতিষ্ঠাতা লেখক অভিজিৎ রায় হত্যা মামলার রায়ের দিন আগামী ১৬ ফেব্রুয়ারি ধার্য করেছেন আদালত। রাষ্ট্রপক্ষ ও আসামিপক্ষের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে ঢাকার সন্ত্রাসবিরোধী বিশেষ ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. মজিবুর রহমান বৃহস্পতিবার এ দিন নির্ধারণ করেন। এ সময় চার আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী মো. গোলাম ছারোয়ার খান জাকির বলেন, ‘আসামিপক্ষের যুক্তিতর্কের জবাব দেওয়া হয়েছে। এ মামলায় তিন আসামি ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন। তারা কিভাবে হত্যা করেছে তার সব বর্ণনা জবানবন্দিতে আছে। অন্য সাক্ষী ও আসামিদের জবানবন্দি- সব মিলিয়ে এ আসামিরা যে হত্যাকাণ্ডে জড়িত ছিল তা আমরা আদালতের সামনে তুলে ধরেছি।’ আসামিরা সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড পাবেন বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।

আসামিপক্ষের আইনজীবী মো. নজরুল ইসলাম বলেন, ‘আসামিদের সাজা দেওয়ার মতো কোনো তথ্য-প্রমাণ পাওয়া যায়নি। আমরা আসামিদের খালাস দাবি করেছি।’

আলোচিত এ মামলার আসামিরা হলেন- চাকরিচ্যুত মেজর সৈয়দ মোহাম্মদ জিয়াউল হক ওরফে জিয়া, মোজাম্মেল হুসাইন ওরফে সায়মন (সাংগঠনিক নাম শাহরিয়ার), আবু সিদ্দিক সোহেল ওরফে সাকিব ওরফে সাজিদ, আকরাম হোসেন ওরফে আবির, আরাফাত রহমান ও শফিউর রহমান ফারাবি। মেজর জিয়া এবং আকরাম হোসেন পলাতক। অপর চার আসামি কারাগারে আছেন।

এ মামলায় রাষ্ট্রপক্ষে মোট ৩৪ সাক্ষীর মধ্যে ২৯ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ হয়। গত বছর ২০২০ সালের ১৩ মার্চ আদালতে এ মামলায় অভিযোগপত্র দাখিল করা হয়। এরপর একই বছরের ১ আগস্ট ছয় আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ (চার্জ) গঠনের মাধ্যমে বিচার শুরুর নির্দেশ দেন আদালত।

২০১৫ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি রাতে অমর একুশে বইমেলা থেকে সস্ত্রীক ফেরার পথে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় টিএসসির সামনে অভিজিৎ রায় ও তার স্ত্রী রাফিদা আহমেদ বন্যার ওপর ধারালো অস্ত্র নিয়ে হামলা চালায় দুর্বৃত্তরা। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পর মারা যান অভিজিৎ। ওই ঘটনায় অভিজিতের বাবা অধ্যাপক ড. অজয় রায় পরদিন শাহবাগ থানায় হত্যা মামলা করেন।

সূত্রঃ সমকাল

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button

Blocker Detected

Please Remove your browser ads blocker