খেলাধুলা

হামলার ভীতি কাটাতে মোস্তাফিজের হঠাৎ বিয়ে

দ্য ফিজের বিয়েটা হয়ে গেল অনেকটা হুট করেই! ২২ মার্চ শুক্রবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মনোবিজ্ঞান প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী সামিয়া পারভীন শিমুর সঙ্গে নতুন জীবনে পার রাখেন কাটার মাস্টার। মায়ের পছন্দের পাত্রী শিমু সম্পর্কে মুস্তাফিজের আপন মামাত বোন। কিন্তু কেন হুট করে এই বিয়ে?

গত ১৫ মার্চ (শুক্রবার) নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে আল নূর মসজিদে সন্ত্রাসী হামলায় অল্পের জন্য বেঁচে গেছেন মুস্তাফিজসহ জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা। ওই হামলায় ৪৯জন নিহত হয়েছেন। এরপর বাতিল হয় সিরিজের তৃতীয় টেস্ট। ১৬ মার্চ তড়িঘড়ি করে বিমানের টিকিট জোগার করে দেশে ফেরানো হয় ভীতসন্ত্রস্ত ক্রিকেটারদের। দেশে ফিরেই সাতক্ষীরায় নিজ গ্রামের বাড়িতে ছুটে যান মুস্তাফিজ। এরপরেই সোজা বিয়ের পিঁড়িতে!

মুস্তাফিজের পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, শিমু আগে থেকেই মুস্তাফিজের মায়ের পছন্দের পাত্রী ছিলেন। মুস্তাফিজের মেজো ভাই মাহফুজুর রহমান মিঠু জানিয়েছেন যে মায়ের সিদ্ধান্তেই এভাবে হঠাৎ করে ২৩ বছর বয়সী এই পেসারের বিয়ের আয়োজন। তিনি বলেন, ‘নিউজিল্যান্ডে অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার মুখোমুখি হওয়ার পর থেকেই মোস্তাফিজুর খুব ঘাবড়ে গিয়েছিল। সেইজন্য আমরা ঠিক করি যে তাকে বিয়ে দেয়া হবে। এটা আমাদের মায়ের সিদ্ধান্ত ছিল। বিশ্বকাপের পর বিবাহ পরবর্তী অনুষ্ঠান করা হবে।’

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button

Blocker Detected

Please Remove your browser ads blocker